প্রচ্ছদসারাদেশ

বিনামূল্যে অসহায় কৃষকের পাশে সুবর্ণচর উপজেলা ছাত্রলীগ

সুবর্ণচর প্রতিনিধি:

নোয়াখালির সুবর্ণচরে অসহায় কৃষকের পাশে দাঁড়ালেন উপজেলা ছাত্রলীগ।

করোনায় লকডাউন ঘোষিত নোয়াখালী, একদিকে যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ অন্যদিকে দিনমজুর না পাওয়ায় কৃষকেরা পড়ছে বিপাকে। ধান কাটার লোক না পেয়ে খেতেই ভঙ্গ হতে বসেছে কৃষকের স্বপ্ন।
এই দূর্যোগপূর্ণ মুহুর্তে অসহায় কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছে সুবর্ণচর উপজেলা ছাত্রলীগ। টানা ১১ দিন ধরে বিভিন্ন ইউনিয়নে ধান কাটছেন তারা,
সোমবার (৪ মে) সকাল ১০ টায় সুবর্ণচর উপজেলার ৫নং চরজুবিলী ইউনিয়নের ৩ ওয়ার্ডের কৃষক মাহফুজ, জামালসহ একাধিক কৃষকের প্রায় ৩ একর জমির ধান কেটে দেন তারা।
৫ নং চরজুবিলী ইউনিয়ন ও চরজব্বার ডিগ্রী কলেজ ছাত্রলীগের নেত্রীত্বে ধান কাটায় অংশ নেন, সুবর্ণচর উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক আমির খসরু মাহমুদ, চরজব্বার ডিগ্রী কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি আজগর হোসেন পলোয়ান, চরজব্বার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ফজলুল হক ফজলু উক্ত ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত, চরজুবিলী ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি জামাল উদ্দিন, সাধারন সম্পাদক জিসান মাহমুদ রিপাত, সহ-সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা লোকমান হোসেন সাগরসহ উপজেলা ছাত্রলীগের প্রায় ৫০জন নেতা কর্মি ধান কাটায় অংশ গ্রহন করেন।
সুবর্ণচর উপজেলা ছাত্রলীগ আহবায়ক আমির খসরু মাহমুদ বলেন, “আমাদের প্রিয় নেত্রী বঙ্গকণ্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা এবং নোয়াখালী ৪ সংসদসদস্য একরামুল করিম চৌধুরী এমপির পরামর্শে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে সুবর্ণচরে বিনামূল্য অসহায় কৃষকের ধান কেটে দেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি, আজ ধান কাটার ১১ তম দিন দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত আমাদের কার্যক্রম চলমান থাকবে, দেশের যে কোন দূর্যোগপূর্ণ মুহুর্তে অতীতের মত ছাত্রলীগ সর্বদা প্রসস্ত থাকবে আজকে আমাদের নেতা কর্মিরা রোজা রেখে ধান কাটতে চলে এসেছে আমি এসকল নেত্রীবৃন্দকে অভিনন্দন জানাই, কৃষক বাঁচলে বাঁচবে দেশ, আমরা সব মসময় কৃষকদের পাশে আছি”।
ছাত্রলীগের এমন মহৎ উদ্যােগে খুশি কৃষকেরা, তারা বলেন “ রোজার দিনেও ছাত্রলীগ আমাদের ধান কেটে দিবে সেটা বিশ্বাস করতে পারিনি, আমাদের দূর্দিনে ছাত্রলীগ পাশে দাঁড়িয়েছে বলে আমাদের কস্টের ফসল ঘরে তুলতে পারছি” তারা ছাত্রলীগ কর্মিদের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: কপিরাইট সুবর্ণবার্তা !!
Close
Close