হতদরিদ্র জেলেদের মাঝে নগদ অর্থ প্রদান করলেন ব্যবসায়ী রফিক

আরিফুর রহমানঃ করোনাভাইরাস উপেক্ষা করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নদীতে গিয়েও মাছের দেখা পাচ্ছেন না নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের সাবাব চৌধুরী ঘাটের জেলারা। নদী থেকে জাল ও নৌকা নিয়ে শূন্য হাতে ফিরতে হচ্ছে তাদের। ফলে, অনেক কষ্টে দিন পার করছেন এখানকার কয়েক’শ জেলে পরিবার। কর্মহীন হয়ে বাড়িতেই অলস সময় কাটাচ্ছেন তারা। তাদের কথা মাথায় রেখে করোনাভাইরাসের সংক্রোমনরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া হতদরিদ্র জেলেদের মাঝে নগদ অর্থ প্রদান করলেন প্রচারবিমূখ একজন স্বজ্জন ফেব্রিক্স ব্যবসায়ী। তিনি ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার মো. রফিকুল ইসলাম। তাঁর শশুরবাড়ী সুবর্ণচর উপজেলার পূর্ব চরবাটা গ্রামে।

 

শনিবার উপজেলার মোহাম্মদপুরের নদী পাড়ের প্রায় প্রতিটি গ্রামের জেলে পাড়ায় গিয়ে বাড়ি বাড়ি ঘুরে হতদরিদ্রদের হাতে মাথা পিছু নগদ টাকা প্রদান করেন তিনি। এর আগে তিনি নিজস্ব অর্থায়নে পূর্ব চরবাটা ইউনিয়নের, হতদরিদ্র ইমাম-মুয়াজ্জিন, দিনমজুর, কর্মহীন মানুষ, অস্বচ্ছল মানুষ, হত-দরিদ্র ও অসহায় মানুষদের খাদ্যসামগ্রী বিতরণসহ জনসচেতনামূলক কাজ করছেন তিনি।

জেলে পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ প্রদান করছেন ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম। ছবি- সুবর্ণবর্তা

এ বিষয়ে ফেব্রিক্স ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে সারা দেশব্যাপী সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য লোকজনকে ঘরে থাকার আহবান করা হয়েছে। তার প্রেক্ষিতে কর্মহীন অস্বচ্ছল মানুষদের আয়ের কোনো উৎস না থাকায় কর্মহীন অস্বচ্ছলদের মাঝে খদ্যসহায়তা ও নগদ অর্থ বিতরণ করেছি। বঞ্চিতদের মাঝে নিজস্ব অর্থ প্রদান করে আর্তমানবতার সেবায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এই দূর্যোগ মূহুর্তে সাধ্যানুযায়ী মানবসেবা করে যাচ্ছি এবং আমার দেখদেখি বিত্তশালীরা অসহায় মানুষদের সেবায় এগিয়ে আসবে বলে আশা করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *